Namecheap.com
Published On: Sat, Jan 20th, 2018

কিশোরীকে নির্যাতনের কুকীর্তির ভিডিও ধারণ, ফেঁসে গেলেন নিজেও

ঘরোয়া এক আয়োজনে উপস্থিত হওয়া কিশোরীকে দলগত শারীরিক নির্যাতনের দায়ে তিনজনের কারাদণ্ড দিয়েছেন সিডনির আদালত। ২০১৫ সালের মে মাসে ১৬ বছর বয়সী ওই কিশোরীকে নির্যাতন করেছিলেন ‘তারা’।

তাদের মধ্যে কুট স্টেভেনসনের বয়স ২৭ বছর এবং আন্দ্রে ওয়াটারসের বয়স ২৫ বছর। তারা দু’জন গত বছরই দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন। শারীরিক নির্যাতনে দায়ে স্টেভেনসনের নয় বছরের কারাদণ্ড হয়েছে। ওয়াটারসকে সাত বছর আট মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

 

তবে শারীরিক নির্যাতনে সময় উপস্থিত থেকে ভিডিও ধারণ করায় কার্লে ওয়াটসনের ছয় বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড হয়েছে। ওয়াটসনের ধারণ করা ১৭ মিনিটের ওই ভিডিও পরে ছড়িয়ে পড়েছিল।

শারীরিক নির্যাতনে আগে কিশোরীকে নেশাদ্রব্য খাইয়ে দেওয়া হয়েছিল বলে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী দাবি করেন। তার দাবি, নেশাদ্রব্য খাইয়ে দেওয়ার কারণেই সেই ঘটনার স্মৃতি ওই কিশোরীর নেই।
এমনকি ভিডিওতে দোষী সাব্যস্ত ওই যুবকদেরও মদ্যপ বলে মনে হয়েছে

Read also:

মাশরাফি শুধু স্টার না, মাশরাফি সুপারস্টার: ভারতীয় ধারাভাষ্যকার গৌতম

গতকাল মুশফিকুর রহিমের আউটের পর নাসির হোসেনের পরিবর্তে মাঠে নামেন মাশরাফি। বাংলাদেশ অধিনায়ক মাঠে নামার সঙ্গে সঙ্গে গর্জে উঠে পুরো স্টেডিয়াম। মাশরাফি যেন এক ভালোবাসার নাম। হোক সেটা ব্যাটিং, বোলিং কিংবা ফিল্ডিং। মাশরাফি থাকলেই সবার আগ্রহ যেন বেড়ে যায়। আর গতকাল এমনটাই বলেছেন ভারতীয় ধারাভাষ্যকার গৌতম ভিমানি।

 

বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা ম্যাচ চলছে। কমেন্ট্রি বক্সে ভারতীয় ধারাভাষ্যকার গৌতম ভিমানি ও আতহার আলি খান। গৌতম ভীমানি বলছিলো- “একটা জিনিস খুব ভালোভাবেই লক্ষ্য করছি, মাশরাফি এখানে খুব-ই জনপ্রিয়। সে বল হাতে নিলেও গ্যালারীতে গর্জন, ব্যাট হাতে নিলেও গর্জন, ফিল্ডিং করতে গেলেও গর্জন! যেটা ইন্ডিয়াতে শুধুমাত্র শচীন টেন্ডুলকারের জন্য জন্য হয়ে থাকে। মাশরাফি এখানে সত্যিকারের স্টার।

সঙ্গে সঙ্গে আতাহার আলী খান বলে ওঠেন, “মাশরাফি শুধু স্টার না, মাশরাফি সুপারস্টার!” আসলেই, মাশরাফি সুপারস্টার। যার নাম মানেই বাংলাদেশ। যার হাত ধরেই বদলে গেছে পুরো বাংলাদেশ!

Leave a comment

XHTML: You can use these html tags: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>