Namecheap.com
Published On: Sun, Jan 21st, 2018

আইপিএলের নিলামের সর্বোচ্চ রিসার্ভ মূল্য দুই কোটি রুপির তালিকায় সাকিব

আগামী ২৭ ও ২৮ জানুয়ারি ব্যাঙ্গালুরুতে অনুষ্ঠিত হবে চলতি বছরের আইপিএল নিলাম। এবারের নিলামে দেশী ও বিদেশী ১৬ জন মারকিউ খেলোয়াড়সহ ৫৭৮ জন অংশ নিবেন।

বিসিসিআই প্রকাশিত এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ১৮ জন খেলোয়াড়কে ঠিক রেখে ১৮২টি স্লটে নিলাম অনুষ্ঠিত হবে। আইপিএলের নিলামের সর্বোচ্চ রিসার্ভ মূল্য দুই কোটি রুপির তালিকায় সাকিব। ১৩ জন ভারতীয়সহ ৩৬ জন খেলোয়াড় শীর্ষ ব্র্যাকেটে থাকবেন।

মারকিউ খেলোয়াড়রা হলেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন, গৌতম গাম্ভীর, শিখর ধাওয়ান, অজিঙ্কে রাহানে, হারভাজন সিং, যুবরাজ সিং, ক্রিস গেইল, বেন স্টোকস, কেন উইলিয়ামসন, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, জো রুট, মিশেল স্টার্ক, ফাফ ডু প্লেসিস, ডুয়াইন ব্র্যাভো, কিয়েরন পোলার্ড ও সাকিব আল হাসান।

 

আইপিএল চেয়ারম্যান রাজীব শুক্লা বলেছেন, আইপিএল নিলামে একজন খেলোয়াড়কে বেছে নেয়ার আগে বিভিন্ন ধরনের সমীকরণ কাজ করে। আর এর মাধ্যমে পুরো নিলাম অনুষ্ঠানটি আকর্ষণীয় হয়ে উঠে। খেলোয়াড় ধরে রাখার ক্ষেত্রে আটটি ফ্র্যাঞ্চাইজি ইতোমধ্যেই আমাদের কাছে তাদের সম্ভাব্য লক্ষ্যের ইঙ্গিত দিয়েছে। মারকিউ তালিকাটি তারকাদের নিয়ে করা হয়েছে। কিন্তু ভারতের নতুন খেলোয়াড়দের দিকে আমি তাকিয়ে আছি।

এবারের নিলামে ভারতের জাতীয় দলের জার্সি গায়ে খেলা ৬২ জন খেলোয়াড় ছাড়াও ২৯৮ জন নতুন খেলোয়াড় অংশ নিচ্ছেন। এছাড়াও নিজ নিজ দেশের হয়ে জাতীয় দলে খেলা ১৮২ জন বিদেশী খেলোয়াড়ও আছেন। তাদের সাথে আছেন আরো ৩৪ জন বিদেশী খেলোয়াড় যাদের এখনও জাতীয় দলে খেলার সুযোগ হয়নি। এছাড়াও আইসিসি’র সহযোগী সদস্য দেশের দু’জন ক্রিকেটার আছেন।

Read also:

সেনা অভিযান শেষ, হোটেলের ভিতর ছড়িয়ে মৃতদেহ

শেষ হল অভিযান৷ ১২ ঘণ্টার লাগাতার গুলি বিনিময়ের পর অবশেষে খতম করা হয়েছে বন্দুকধারীদের৷ সেনা অভিযান শেষ, হোটেলের ভিতর ছড়িয়ে মৃতদেহ। সন্ত্রাস কবলিত আফগান রাজধানীতে আরও একটা রক্তাক্ত সকাল৷

আফগান স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক জানিয়েছে, শনিবার রাত থেকে শুরু হওয়া হমালায় নিহতের সংখ্যা ৫ জন৷ তবে হোটেলের ভিতরের পরিস্থিতি সঠিক জানা যায়নি৷ মৃতের সংখ্যা নিয়ে তৈরি হয়েছে ধোঁয়াশা৷ কিছু বেসরকারি সংবাদ মাধ্যমের খবর, পাঁচ জনের অধিক মৃত্যু হয়েছে৷

বিবিসি জানাচ্ছে, অভিজাত ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেলে আর কোনও বন্দুকধারী লুকিয়ে নেই৷ দেড়শ আবাসিককে উদ্ধার করা হয়েছে৷ এদের অনেকেই ভিনদেশি৷ হামলার দায় কোনও জঙ্গি সংগঠন নেয়নি৷ তবে সন্দেহের তির সেই তালিবানদের দিকেই, কারণ ২০১১ সালে এই ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেলেই তারা হামলা চালিয়েছিলে৷ সেই হামলায় সবমিলে ২১ জনের মৃত্যু হয়৷

 

কী পরিস্থিতি কাবুলের ?

এএফপি, এপি, রয়টার্স ও একাধিক সংবাদ মাধ্যমের ছবিতে দেখা যাচ্ছে, বিখ্যাত ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেল থেকে বের হচ্ছে ধোঁয়া৷ অনেক দূর থেকে সেই ধোঁয়া দেখতে পাচ্ছেন কাবুলবাসী৷ হোটেলের চারিদিকে আফগান সেনার ঘেরাটোপ৷ তার বাইরে উদ্বিগ্ন জনতার ভিড়৷

শনিবার স্থানীয় সময় রাত ৯টা ২০ মিনিট নাগাদ কাবুলের বাগ-এ-বালা এলাকার এই হোটেলে কয়েকজন যুবক আচমকা ঢুকে পড়ে৷ এরপরেই তারা এলোপাথাড়ি গুলি চালাতে থাকে৷ প্রাথমিকভাবে তাদের গুলিতে মৃত্যু হয় নিরাপত্তারক্ষীদের৷ আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে৷ এদিক ওদিক সকলেই ছুটতে শুরু করেন৷

তারই মধ্যে বন্দুকবাজদের কয়েকজন হোটেলের দু’তলায় উঠে যায়৷ সেখানেও এলোপাথাড়ি গুলি চালানো হয়৷ এছাড়া হোটেলের একটি তলায় আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়৷ রাতভর গুলির লড়াইয়ে কেঁপে কেঁপে উঠেছে ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেল৷ অনেক দূর থেক আগুনের শিখা দেখতে পেয়েছেন কাবুলবাসী৷

রবিবার সকালেও গুলির লড়াই চলেছে৷ একসময় দেখা যায় প্রাণ বাঁচাতে কয়েকজন আবাসিক ছ’তলা হোটেলের জানালা দিয়ে কয়েকজন ঝুলে ঝুলে নামছেন৷ তাদের উদ্ধার করা হয়৷ বেলা বাড়তেই আফগান গুলির লডা়ই তীব্র হয়৷ কিছু পরে আফগান সরকার জানিয়ে দেয় বন্দুকধারীরা খতম৷

Leave a comment

XHTML: You can use these html tags: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>