ক্রমশই ঘণিয়ে আসছে ‘ফণি’! সমুদ্রবন্দরে ৪ নম্বর সংকেত

0
569

প্রলয়ংকারী রূপ ধারণ করে ক্রমশই ঘণিয়ে আসছে বাংলাদেশের আয়তনের চেয়েও সৃষ্ট বড় ঘূর্ণিঝড় ‘ফণি’। বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট গভীর নিম্নচাপের ফলে ফণি প্রবল শক্তি সঞ্চয় করে সাইক্লোনে পরিণত হয়েছে। বর্তমানে এর গতিবেগ ঘণ্টায় ২শ’ কিলোমিটার বলে জানিয়েছে ভারতের আবহাওয়া বিভাগ। ঘূর্ণিঝড়ের কারণে উড়িষ্যা, অন্ধ্রপ্রদেশ এবং তামিলনাড়ুর উপকূলবর্তী এলাকায় জারি করা হয়েছে সতর্কতা। এছাড়া বাংলাদেশের উপকূলীয় অঞ্চল চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ৪ নম্বর সতর্কতা সংকেত দেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (৩০ এপ্রিল) রাত ৯ টা ঘূর্ণিঝড় ফোনি চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে প্রায় এক হাজার ১০০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থান করছিল। এটি আরও ঘনীভূত হয়ে উত্তর ও উত্তরপশ্চিম দিকে অগ্রসর হতে পারে।বাংলাদেশের আবহাওয়া অধিদফতর বলছে, দক্ষিণ-পশ্চিম ও দক্ষিণপূর্ব বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড়টি উত্তর এবং উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর ও ঘনীভূত হয়ে একই এলাকায় অবস্থান করছে।

চট্টগ্রাম, কক্সবাজার এবং পায়রা সমুদ্র বন্দরসমূহকে ৪ নম্বর দূরবর্তী সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। চার দিন আগে দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ থেকে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হওয়া ‘ফণী’ আগামী শুক্রবার ভারতের পুরীর দক্ষিণে আছড়ে পড়তে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে সেদেশের আবহাওয়া বিভাগ।সে সময় বাতাসের সর্বোচ্চ গতি ঘণ্টায় ১৭৫ থেকে ১৮৫ কিলোমিটার হতে পারে বলেও জানানো হয়। ক্ষয়ক্ষতি এড়াতে সবধরনের প্রস্তুতি নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

LEAVE A REPLY