সৎ না অসৎ পরীক্ষার ছলে নিজ মেয়েকে ধর্ষণ

গাজীপুরের টঙ্গীতে নিজের কণ্যা শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে এক পাষণ্ড পিতার বিরুদ্ধে।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী শুক্রবার (১৭ মে) রাতে টঙ্গী পূর্ব থানায় অভিযোগ দায়ের করলে অভিযুক্ত পিতা রমজান আলী (৩৮) কে আটক করে পুলিশ।

অভিযুক্ত রমজান আলী টঙ্গীর এরশাদ নগর এলাকার ৮নং ব্লকের মৃত আসলাম আলীর ছেলে। সে পেশায় একজন রাজমিস্ত্রী।

ধর্ষিতা জানান, বাবার অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে মা আমাকে দশ বছর বয়সে বাবার কাছে রেখে চলে যায়। প্রায় দুই বছর আগে আমার বাবা আমার সাথে রাত্রি যাপন করে। এ সময় বাবা আদর করার ছলে আমাকে কাছে টানলে আমি বাধা দিলে বলে, তুমি সৎ না অসৎ সেটা একটু পরীক্ষা করে দেখবো বলে আমাকে মুখে গামছা বেধে ধর্ষণ করে।

ঘটনাটি আমার ফুফুকে জানালে পারিবারিক ভাবে বিষয়টি সমাধান করা হয়। পরে পারিবারের সিদ্ধান্তে সাভারের একটি মাদ্রাসায় আমাকে সপ্তম শ্রেণীতে ভর্তি করে দেওয়া হয়। এর পরেও থামেনি এ নির্যাতন। মাদ্রাসা থেকে ছুটিতে বাড়িতে এলে বাবা প্রায়ই আমাকে ধর্ষণ করতো বলে অভিযোগ করে এ কিশোরী।

গত বুধবার (১৫ মে) বাৎসরিক পরীক্ষা শেষে বাড়িতে এলে ফের ধর্ষণ করে পাষণ্ড পিতা। অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে শুক্রবার রাতে থানায় অভিযোগ করলে টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশের উপ-পুলিশ পরিদর্শক নজরুল ইসলাম অভিযুক্ত পিতা রমজান আলীকে আটক করে।

টঙ্গী পূর্ব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. কামাল হোসেন ঘটনাটির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*