পুরুষদের যৌন সমস্যার সমাধান দেবেন সোনাক্ষী

ভারতীয় সমাজে ‘যৌনতা’ শব্দটি চিরকাল নিষিদ্ধ। এ বিষয়ে খোলাখুলি আলোচনা তো দূরের কথা, ‘সেক্স’ উচ্চারণও ঘোরতর পাপ। সমাজে সেকেলে চিন্তাধারায় আঘাত হানতে চলেছে সোনাক্ষী সিনহার নতুন ছবি ‘খানদানি সাফাখানা’।

সোনাক্ষীর আগামী ছবি ‘খানদানি সাফাখানা’-র গল্পের মূলকথাই হল পুরুষদের গোপন শারীরিক সমস্যা নিয়ে সামাজিক ছুৎমার্গ। ইতোমধ্যেই অবমুক্ত হয়েছে ছবির ট্রেলার। ট্রেলার দেখে বোঝা যাচ্ছে, হাস্যরসের মধ্যে দিয়ে গুরুগম্ভীর ‘ব্যধি’কে তুলে ধরেছেন পরিচালক শিল্পী দাশগুপ্তা।

একটি সেক্স ক্লিনিককে ঘিরে আবর্তিত হয়েছে চিত্রনাট্য। সোনাক্ষীর মামা গ্রামের ওই ক্লিনিক চালাতেন। তার মৃত্যুর পর ক্লিনিকের ভার এসে পড়ে সোনাক্ষীর উপরে। মামার দানপত্র অনুযায়ী, তাকে ৬ মাস চালাতে হবে এই ক্লিনিক। তারপরই সম্পূর্ণ মালিকানা পাবেন সোনাক্ষী।

সেই মতো ক্লিনিক চালাতে শুরু করেন ভাগ্নী। কিন্তু এক মহিলা চালাবেন সেক্স ক্লিনিক! পুরুষরা খোলাখুলি তাদের সমস্যা বলতে পারবেন তো? না। আকারে-ইঙ্গিতেই রোগীরা বোঝানোর চেষ্টা করে যাচ্ছেন। মানে সেক্স নিয়ে সেই ছুৎমার্গ।

এদিকে সোনাক্ষী চান মানুষ দ্বিধাহীনভাবে এনিয়ে কথা বলুক। সোনাক্ষীর লড়াইয়ে পাশে পান ভালবাসার মানুষকে। আর ছবিতে গানের সঙ্গে অনেকখানি দৃশ্যজুড়ে রয়েছেন বাদশা। তার মতো সেলিব্রিটিকে নিয়ে যৌনতার বিষয়ে সচেতনতার লক্ষ্যে প্রচারে নামেন সোনাক্ষী। তার বিয়েপাগল ভাইও সাহায্য করেন।

সোনাক্ষী কি পারবেন সেক্স নিয়ে বদ্ধঘরের পর্দা সরাতে? সেটা জানা যাবে ছবি দেখলে। পুরুষদের সেক্সুয়াল সমস্যা নিয়ে ইতোমধ্যেই তৈরি হয়েছে ‘শুভ মঙ্গল সাবধান’। ছবিতে প্রশংসিত হয়েছিল আয়ুষ্মান খুরানা ও ভূমি পেডনেকরের অভিনয়।
‘খানদানি সাফাখানা’-ও আর একটা বাস্তবধর্মী অথচ অন্যরকম ছবি হতে চলেছে বলে মনে করছেন সমালোচকরা। নেটিজেনদের মতে, ট্রেলারটি ভিন্নধর্মী। আরো একটি অন্যরকম ছবি উপহার দিতে চলেছে বলিউড। মানানসই গান ও সংলাপ হতে চলেছে ছবির উপরি পাওনা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*