পুরান ঢাকায় মুখোশধারীদের হামলা, গুলিবিদ্ধ যুবলীগের তিননেতা

পুরান ঢাকার ওয়ারী এলাকায় রাতের আঁধারে মুখোশধারীদের হামলায় স্থানীয় যুবলীগের তিননেতা আহত হয়েছেন। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় আহতদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

শনিবার রাত নয়টার দিকে ওয়ারীর নারিন্দা এলাকায় এই হামলার ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন- ৪১ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক জুয়েল (৩৩), তিন নম্বর ইউনিটের সভাপতি রবিন (৩২) এবং নির্বাহী সদস্য কাজল (৩৬)।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ওয়ারী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সেলিম মিয়া কে তিনি বলেন, রাত ৯টার দিকে দক্ষিণ মুসন্দির একটি মাংসের দোকানে স্থানীয় যুবলীগের কয়েকজন বসে ছিলেন। এ সময় ৫-৬ জন মুখোশধারী যুবক সেখানে এসে তিনজনের পায়ে গুলি করে দ্রুত হেঁটে চলে যায়।

তিনি আরো বলেন, প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে এই যুবলীগ নেতারাসহ বেশ কয়েকজন সেখানে বসে এলাকার কোন এক বিষয় নিয়ে দুপক্ষের সঙ্গে শালিস বৈঠক করে। কোনো পক্ষই শালিসের সিদ্ধান্ত না মানায় তা বাতিল হয়ে যায়। দুই পক্ষ চলে যাওয়ার পর যুবলীগের এই নেতারা সেখানে আড্ডা দিচ্ছিল।এটা রাজনৈতিক না অন্য কোনো কারণে ঘটেছে- তা জানতে তদন্ত করা হবে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রাত সাড়ে আটটার সময়ে তারা তিনজন নারিন্দার দক্ষিণ মুসন্দি এলাকার বনফুল হোটেলের গলির মুখে বসে আড্ডা দিচ্ছিলেন। হঠাৎ করেই মুখোশ পরা চার থেকে পাঁচজন সন্ত্রাসী এসে তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে। পরে গোলযোগের মধ্যে তারা সবাই পালিয়ে যায়।এ সময় জুয়েলের বাম পায়ে রবিনের ডান পায়ে এবং কাজলের বাম উরুতে একটি করে গুলি লাগে। পরে তাদের রাত পৌনে ১০ টার সময়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে আনা হয়।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক বাচ্চু মিয়া বলেন, কী নিয়ে গোলাগুলি হয়েছে তা আমরা জানতে পারিনি। স্থানীয়রা তিনজনকে নিয়ে এসেছে। তাদেরকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।