Published On: Thu, Sep 20th, 2018

কিডনি রোগ প্রতিরোধে কী করবেন

কথায় বলে, প্রতিকারের চেয়ে প্রতিরোধ উত্তম। কিডনি রোগের বেলায়ও বিষয়টি তাই। নিয়মিত ব্যায়াম, জীবনযাপনের ধরন পরিবর্তন, স্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাস ইত্যাদির মাধ্যমে ৫০ থেকে ৬০ ভাগ কিডনি রোগ প্রতিরোধ করা যায়।

কিডনি রোগ প্রতিরোধের বিষয়ে এনটিভির নিয়মিত আয়োজন স্বাস্থ্য প্রতিদিন অনুষ্ঠানের ৩১৯৮তম পর্বে কথা বলেছেন বিআরবি হাসপাতালের কিডনি রোগ বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা. এম এ সামাদ।

প্রশ্ন : কিডনি রোগ প্রতিরোধের উপায় কী?

উত্তর : কিডনি রোগ যেন না হয়, আমাদের এ বিষয়ে খুব সচেতন হতে হবে। ডায়াবেটিস থাকলে এটি এমনভাবে নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে যেন হিমোগ্লোবিন এওয়ানসি সাতের নিচে থাকে। আমাদের উচ্চ রক্তচাপ থাকলে সেটি কোনোভাবেই অবহেলা করা যাবে না। একে এমনভাবে রাখতে হবে যেন ১৩০/৮০-এর নিচে থাকে। প্রস্রাবে প্রোটিন গেলে একে আরো কমিয়ে ১২০/৮০-এর নিচে রাখতে হবে। স্ক্রিনিং করবে। সুস্থ জীবনযাপন বলতে যা বোঝায়, সেগুলো করতে হবে। ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখা, ধূমপান না করা, ব্যথার ওষুধ যত্রতত্র কিনে না খাওয়া, সচল থাকা, ব্যায়াম করা—এগুলো মেনে চললে আমরা সুস্থ থাকতে পারব। ৫০ থেকে ৬০ ভাগ ক্ষেত্রে কিডনি রোগ এবং কিডনি বিকল রোগ প্রতিরোধ করতে পারব। সেইসঙ্গে হার্টের রোগ, ফুসফুসের রোগ, ক্যানসার— সেগুলোও প্রতিরোধ করা যাবে।